1. mumin.2780@gmail.com : admin : Muminul Islam
  2. Amenulislam41@gmail.com : Amenul :
  3. smking63568@gmail.com : S.M Alamgir Hossain : S.M Alamgir Hossain
লালমনিরহাটে ছাত্রলীগ ও বিএনপির সংঘর্ষ - আলোরদেশ২৪

লালমনিরহাটে ছাত্রলীগ ও বিএনপির সংঘর্ষ

  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২২
  • ৫৩০ বার দেখা হয়েছে



অনলাইন ডেস্ক নিউজ::
মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করেন শেখ ফজলে শামস পরশ
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিএনপি ও ছাত্রলীগ মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে পুলিশসহ উভয় পক্ষের প্রায় ১০ থেকে ১২ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুই ছাত্রলীগ নেতা তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন, আর বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে যান।


আজ১৪ই অক্টোবর শুক্রবার দুপুরে উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় এলাকার ফিলিং স্টেশনের সামনে এ ঘটনাটি ঘটে। আহতরা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ দপ্তর সম্পাদক মিলন সরকার, ছাত্রলীগ নেতা জাহেদুল ইসলাম, মহিদুল ইসলাম জুয়েল, রিফান, আসাদুল ও রুমন। হাতীবান্ধা থানার উপ পরিদর্শক মহিদুল ইসলাম আহত হয়েছেন।

এ ছাড়াও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা নুরন্নবী কাজল, রবিউল, আলী ও ছাত্রদল নেতা জাহিদও আহত হন।

তবে শুনা গেছে, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার তেলের পাম্প এলাকার দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত রংপুর বিভাগীয় গণসমাবেশ

উপলক্ষে সভা শেষে বের হন বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।


এ সময়ে উপজেলা সিন্দুর্না ইউনিয়ন ছাত্রলীগের মত-বিনিময়-সভা উপলক্ষে একটি মিছিল বের করে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগ। পথিমধ্যে উপজেলার হাতীবান্ধা ফিলিং স্টেশনের সামনে বিএনপি ও ছাত্র লীগের মাঝে সংঘর্ষ বাধে।

এ সময় দু পক্ষের ধাওয়া পাল্টা হয়। এরপর
শুরু ইট ও পাথর নিক্ষেপ। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোশারফ হোসেন বলেন যে, আমরা দলীয় কার্যালয়ে আমাদের একটি সভা শেষ করে বের হয়ে চলে যাচ্ছিলাম।

এমন সময় ছাত্রলীগ আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমাদের কয়েকজন নেতা কর্মি আহত হয়েছেন। তবে তিনি কতজন আহত হয়েছেন তা এখন সঠিক বলতে পারছি না।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক মিলন সরকার বলেন যে, বিকেলে সিন্দুর্না ইউনিয়নে ছাত্রলীগের মত-বিনিময়-সভা উপলক্ষে উপজেলা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা মিছিল বের করে। আমিও সেখানে ছিলাম। হঠাৎ করে বিএনপি ও তার অংঙ্গসংগঠন ছাত্রলীগের ওপর ঢিল ছুড়তে

থাকে। পরে লাঠিসোঠা নিয়ে হামলা চালায়। এতে আমিসহ ছাত্রলীগের আরো ৪ /৫ জন আহত হয়।

হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফাহিম শাহরিয়ার খান জিহান
বলেন যে, আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে তারা হামলা চালায়। এঘটনায় দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক রুবেল ইসলাম বলেন যে, দলীয়

প্রোগাম শেষ করে বের হওয়া মাত্রই ছাত্রলীগ আমাদের ওপর হামলা করে। হামলায় পুলিশ বাধা দিলেও তারা পুলিশের কথা না শুনে ঢিল ছুড়ে। এতে ছাত্রদলের দুজন ও স্বেচ্ছাসেবক দলের তিনজন আহত হন।

তবে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ আল আকসা বলেন যে, আহতদের মধ্যে ২/৩ জন ছাত্রলীগ নেতা ভর্তি আছেন। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

এঘটনায় হাতীবান্ধা থানার ওসি, তদন্ত গুলফামুল ইসলাম বলেন যে, পরিস্থিতি
এখন স্বাভাবিক আছে।
সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় হাতীবান্ধা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মহিদুল ইসলাম আহত হন। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

শেয়ার..

আরো সংবাদ পড়ুন...
© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | আলোর দেশ ২৪ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By Radwan Ahmed