1. mumin.2780@gmail.com : admin : Muminul Islam
  2. Amenulislam41@gmail.com : Amenul :
  3. smking63568@gmail.com : S.M Alamgir Hossain : S.M Alamgir Hossain
মানুষের অশ্রুসিক্ততে সমাহিত হলেন শিক্ষিকা সুলতানা বেগম - আলোরদেশ২৪
সংবাদ শিরোনাম :
কুরবানির গরু জবাইয়ে দেরি, ইমামকে মারধর সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে প্রবেশে ফি বাড়ল দ্বিগুণের বেশি, দর্শনার্থীদের ক্ষোভ ঈদুল আযহা উপলক্ষে আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য কমলগঞ্জে মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির নির্বাচন ১৪ই জুন কুয়েতে ভবনে আগুন মালিকদের লোভকে দুষলেন উপ-প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজে বার্ষিক মিলাদ মাহফিল কমলগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান কমলগঞ্জের ভানুবিলে কৃষক প্রজা আন্দোলন কমলগঞ্জে স্মার্ট ভূমিসেবা সপ্তাহের শুভ উদ্বোধন

মানুষের অশ্রুসিক্ততে সমাহিত হলেন শিক্ষিকা সুলতানা বেগম

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২২ নভেম্বর, ২০২০
  • ৭২১ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক।।


মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ওয়াহিদ সিদ্দেক উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী শিক্ষিকা সুলতানা বেগম (৩০) না ফেরার দেশে চলে গেলেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

(সুলতানা বেগমের জন্ম—০১.০১.১৯৮৬) ১৯৮৬ সালে কমলগঞ্জ বিন্দাবনপুর গ্রামে একটি মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবা মৃত তাহির মিয়া।
মা- লুৎফুন নাহার। সুলতানা বেগম বাবা মার একমাত্র আদরের মেয়ে ছিলেন।
তারা এক ভাই এক বোন।

সুলতানা বেগম প্রথমে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দিয়ে তার শিক্ষাজীবন শুরু করেন। তার পর বিন্দাবনপুর আবুল ফজল থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে পিছনে আর তাকে তাকাতে হয়নি।
এস.এস.সি ১ম, ২০০১ সালে।
এইচ.এস.সি ৩য়, ২০০৪ সালে।
বি এস. সি ২য়, ২০০৮ সালে।
বি এড. ২য় ২০১৬ সালে। উত্তীর্ণ হন।

সুলতানা বেগমের কর্ম জীবন— ২০১২ সালের ১ জানুয়ারি বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন। ওয়াহিদ সিদ্দেক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম চৌধুরী সার্বিক সহযোগিতায় শিক্ষকতায় যোগ দেন। ২০১২ সাল থেকে শুরু করে ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রায় ৮ বছর শিক্ষকতা করেন সুলতানা বেগম।

বিবাহ কাল— সুলতানা বেগম ২০১৭ সালে বিয়ের পিরিতে বসেন। স্বামী মুহাম্মদ নজরুল ইসলামের (৩৫) সাথে পারিবারিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিয়ের পিরিতে বসেন৷ তাদের ৩ বছর সংসারে কোনো সন্তান হয় নি।

সুলতানা বেগম গত কয়েকমাস যাবত কিডনি জনিত রোগ ও লান্সে জটিল রোগে আক্রান্ত হলে ২০ নভেম্বর রাকিব রাবেয়া হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।
তারপর অবস্থার অবনতি হলে আইসিওতে রাখা হয়। অবশেষে মহান মালিকে ডাকে সাড়া দিয়ে ক্ষণস্থায়ী দুনিয়ার মায়া ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন । সুলতানা বেগম তার স্বামীর বাড়িতে অসংখ্য মানুষের অশ্রুসিক্ততে সমাহিত হন।

শেয়ার..

আরো সংবাদ পড়ুন...
© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | আলোর দেশ ২৪ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By Radwan Ahmed