1. mumin.2780@gmail.com : admin : Muminul Islam
  2. Amenulislam41@gmail.com : Amenul :
  3. smking63568@gmail.com : S.M Alamgir Hossain : S.M Alamgir Hossain
রাজনগরে ব্যবসায়ীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা - আলোরদেশ২৪

রাজনগরে ব্যবসায়ীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২২ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫২৭ বার দেখা হয়েছে

রাজনগর প্রতিনিধি।।

মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়নের ধুলিজুরা গ্রামের আকলের বাজারে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী গেদন মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করানো হয়েছে এমনটাই দাবি করলেন স্থানীও এলাকাবাসি ও জনপ্রতিদিধি এবং ব্যবসায়ীবৃন্দ।

আর তারই প্রতিবাদে ২০শে নভেম্বর বাদ জুমা এক বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছেন আকল বাজারেরর সকল ব্যবসায়ীবৃন্দ ও স্থানীয় এলাকাবাসী।

বাজার কমিটির সদস্য আব্দুল করিম লাল মিয়ার সভাপতিত্বে স্থানীয় আকল বাজারে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন আকল বাজার কমিটির সভাপতি আব্দুর রব, বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য জাহিদুল ইসলাম, অরবিন্দু দাশ, দিরেন্দ্র দাশ,এছাড়াও স্থানীয় এলাকা বাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন আব্দুল বাছিত, দেওয়ান আক্তারুজ্জামান,পারভেজ মিয়া, ও সাজনা বেগম,এবং ১ নং ওয়ার্ডেন মেম্বার জাহাঙ্গীর মিয়া প্রমুখ।

বক্তারা বলেন গত ১৫ নভেম্বর বিকেলে আকল বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী গেদন মিয়ার দোকানে পরিকল্পিত ভাবে কে বা কাহারা কিছু জাল টাকা ও ২০ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট রেখে যায় দোকানের টেবিলের নিছে, তখন দোকান মালিক গেদন মিয়া ছিলেন শহরে।

দোকানে রেখে গিয়েছিলেন উনারি ভাতিজা রিদয় মিয়া কে। রিদয় মিয়া যখন দোকান জারু দিতে লাগলো তখনই টেবিলের নিছে পরিত্যক্ত অবস্থায় কিছু টাকা ও পলিথিন দিয়ে মোড়ানো পুতলা দেখতেপায়। সেগুলো দেখা মাত্রই রিদয়ের চাচা দোকান মালিক গেদন মিয়াকে বিষয় টি জানায়। গেদন মিয়া বিষয় টি জানার পর সাথে সাথে রাজনগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজাহান মিয়া এবং উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলাল মিয়া ও পাঁচগাও ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আজাদ মিয়া ও অরবিন্দু সহ রাজনগর থানা পুলিশ কে ফোন দিয়ে বিষয় টি অবগত করেন। যে তার দোকানে কে বা কাহারা এক বান্ডিল টাকা ও পলিথিনে মোড়ানো পুতলা রেখে গিয়েছে। এমন সংবাদ পেয়ে রাজনগর থানার এস আই বিনয় ভূষণ চক্রবর্তীসহ একদল পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে গেদন মিয়ার দোকানে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৯০ হাজার টাকার বান্ডিলে থাকা জাল নোট ও পলিথিনে মোড়ানো পুতলায় ২০ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দোকান মালিক গেদন মিয়া ও তার ভাই পারভেজ মিয়াকে থানায় নিয়ে আসেন, পরে গেদন মিয়ার ভাই পারভেজ মিয়া কে ছেড়ে দিলেও গেদন মিয়া কে ছাড়ে নি পুলিশ।

এসময় বক্তারা বলেন গেদন মিয়া আমাদের এলাকারি একজন লোক ও বিশিষ্ট একজন ব্যবসায়ী তিনি সম্পূর্ণ নির্দোষ। আমরা তাকে খুব ভালো ভাবেই চিনি, সে এমন কাজের সাথে জড়িত থাকতেই পারে না। আর সে যদি নিজে এসবের সাথে জড়িত থাকতো তাহলে সে কিভাবে নিজে প্রশাসন কে এই বিষয় গুলো অবগত করে। আমরা খুব ভালোভাবেই বোঝে গিয়েছি তাকে ফাঁসাতে একটি চক্রের ইন্ধনে এ কান্ড ঘটানো হয়েছে।

আর রাজনগর থানার পুলিশ মূল অপরাধীকে আইনের আওতায় না এনে দোকান মালিক গেদন মিয়া কে গ্রেফতার করেছে। তাদের দাবি বিষয়টি সুষ্ঠ তদন্দ করে ক্ষতিয়ে দেখে এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হোক এমন টাই দাবি স্থানীয় এলাকাবাসী জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ী বৃন্দের।

শেয়ার..

আরো সংবাদ পড়ুন...
© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | আলোর দেশ ২৪ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By Radwan Ahmed